বাংলাদেশ নাকি মায়ানমার কোন বেশি শক্তিশালী

বাংলাদেশ নাকি মায়ানমার কোন দেশ বেশি শক্তিশালী ?

গত এক বছর ধরে বাংলাদেশের সাথে মায়ানমারের রোহিঙ্গা ইস্যু নিয়ে সমস্যা লেগেই রয়েছে । এখনো পর্যন্ত যার কোন মীমাংসা হয়নি তবে বাংলাদেশ মায়ানমারের উপর আন্তর্জাতিকভাবে চাপ তৈরি করছে।

এর মধ্যে হঠাৎ কিছুদিন আগে দুই দেশের সীমান্ত এলাকায় এর মধ্যবর্তী স্থানে অনেকদিন ধরে যে রোহিঙ্গা গুলো আটকে আছে সেখানে মায়ানমারে সেনাবাহিনী সেনা তৎপরতা বাড়িয়ে দেয় এমনটাই জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

এমন অবস্থায় প্রতিবেশী দেশ বাংলাদেশ ও মায়ানমার যুদ্ধে জড়িয়ে পড়বে কিনা তা নিয়ে সন্দেহ থেকেই যাচ্ছে। তবে নিরাপত্তা বিশ্লেষকদের মতে এটি না হওয়ার সম্ভাব্যনাই বেশি। 

তবে সম্প্রতি গত বছরের  প্রথমের দিকে পৃথিবীর প্রায় ১৩৩ টি দেশের মধ্যে জরিপ চালিয় গ্লোবাল ফায়ার পাওয়ার নামক একটি আন্তজাতিক সংস্থা। তারা সামরিক শক্তির দিক থেকে কোন দেশ গুলো সবচেয়ে বেশি এগিয়ে তাদের একটি তালিকা প্রকাশ করে সেখান থেকে বাংলাদেশ ও মায়ানমারের সামরিক শক্তির দিক থেকে ধারণা পাওয়া যায়। 

সেই তালিকা অনুযায়ী  মায়ানমার থেকে বাংলাদেশের জনসংখ্যা অনেক বেশি হলেও সামরিক শক্তি দিক থেকে বাংলাদেশ মায়ানমার থেকে অনেকটা পিছিয়ে  রয়েছে। 

সেখানে বলা হয়েছে সামরিক শক্তির দিক থেকে বাংলাদেশের অবস্থান ৫৭তম ও মায়ানমারের অবস্থান ৩১ তম।

এবার দেখে নেয়া যাক দুই দেশের মধ্যে সামরিক শক্তির পার্থক্য কোন কোন জায়গায়

বাংলাদেশ নাকি মায়ানমার কোন বেশি শক্তিশালী

প্রতিরক্ষা বাজেট

বাংলাদেশের প্রতিরক্ষা বাজেট যেখানে ১৬০ কোটির মতো সেখানে মায়ানমারের প্রতিক্ষণ প্রতিরক্ষা বাজেট প্রায় ২৪০ কোটির উপরে।

সৈন্যসংখ্যা

জরিপ এর তালিকা অনুযায়ী মায়ানমারের জনসংখ্যা প্রায় ৪ লাখ ৬ হাজার আর বাংলাদেশের সৈন্য সংখ্যা প্রায় ১ লাখ ৪০ হাজার যেখানে বাংলাদেশের রিজার্ভ সৈন্য সংখ্যা ৬৫ হাজার আর মায়ানমারের যা ১ লাখ ১০ হাজারের উপরে ।

এয়ারক্রাফট

জরিপে তালিকা অনুযায়ী মায়ানমারের এয়ারক্রাফট রয়েছে ২৪৯ টি আর বাংলাদেশের এর কাছে রয়েছে ১০৪ টি যেখানে মায়ানমারের  যুদ্ধবিমান ৫৬ টি আর বাংলাদেশের রয়েছে ৪৫ টি। আর বাংলাদেশের এট্যাক এয়ারক্রাফট রয়েছ ৪৫ টি আর মিয়ানমারের ৭৭টি।

হেলিকপ্টার

জরিপের তালিকা অনুযায়ী বাংলাদেশের হেলিকপ্টার রয়েছে ৬১ টি আর মিয়ানমারের হেলিকপ্টার রয়েছে ৮০ টি বাংলাদেশের কোন অ্যাটাক হেলিকপ্টার নেই তবে মিয়ানমারের  ৯ টি অ্যাটাক হেলিকপ্টার রয়েছে।

সামরিক যান

তালিকাতে বলা হয়েছে বাংলাদেশ সামরিক বাহিনীর মোট সামরিক যান রয়েছে ৫৩৪ টি আর মায়ানমারের রয়েছে ৪৯২ টি বাংলাদেশের  সাঁজোয়াযান রয়েছে ৯৪২ টি আর মায়ানমারের রয়েছে ১৩৫৮ টি।

আর্টিলারি

বাংলাদেশের আর্টিলারি গান রয়েছে ১৮ টি যা স্বয়ংক্রিয় আর অপরদিকে মিয়ানমারের ১০৮ টি স্বয়ংক্রিয় আর্টিলারি গান রয়েছে।

রকেট প্রজেক্টর

মিয়ানমারের প্রায় ১০৮ টি রকেট প্রজেক্টর রয়েছে আর বাংলাদেশের রয়েছে মাত্র ৩২ টি।

নৌযান

মায়ানমারের  ন্যাভাল অ্যাসিড রয়েছে ১৫৫ টি যেখানে বাংলাদেশের রয়েছে ৮৯ টি।

 ফ্রীগেট

 ফ্রীগেট এর সংখ্যায় বাংলাদেশ এগিয়ে রয়েছে বাংলাদেশের ফ্রিগেট রয়েছে  ছয়টি আর মিয়ানমারের রয়েছে পাঁচটি।

উপরের জরিপ এর তালিকা অনুযায়ী বুঝা যায় বাংলাদেশ মিয়ানমার থেকে সামরিক শক্তি দিক দিয়ে কতটা পিছিয়ে রয়েছে।

আর এই তালিকায় বিশ্বের সেরা সামরিক শক্তিধর দেশ হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র । এর পরে ক্রমান্বয়ে রয়েছে রাশিয়া চীন ও ভারত এর পরে রয়েছে ফ্রান্স যুক্তরাজ্য জাপান চীন ও মিশর। 

আরও পড়ুন : বিশ্বের সবচেয়ে বিপজ্জনক ৫ টি রাস্তা যা দেখে ভয়ে কেপে উঠবেন

লাইক দিনে আমাদের ফেইসবুক পেজে

আর ঘুরে আসুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে

About admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *