গরিলার সেলফি পোজ

মানুষের সাথে সেলফি তুলছে গরিলা বিষয়টা কি অদ্ভুত তাই না !
কিন্তএমনটাই হয়েছে গণতান্ত্রিক প্রজাতন্ত্র কঙ্গোর একটি ন্যাশনাল পার্কে । ওই পার্কে গরিলার সাথে পার্কের এক সৈনিকের তোলা সেলফি টি তুমুল সাড়া ফেলেছে সারা বিশ্বে। যা ইতিমধ্যে ১৪ হাজার বার শেয়ার হয়েছে । লাইক পড়েছে প্রায় 20 হাজারের মতো ।

সেলফিটার বিশেষত্ব হলো ওই সৈনিকের সঙ্গে গরিলা দুটির অসাধারণ পোজ। সেলফির জন্য গরিলা দুটির পোজ মানুষের পোজকেও হার মানায়।

কঙ্গোর ভিরুঙ্গা ন্যাশনাল পার্কটিতে বৃহদাকার গরিলার সঙ্গে সেলফি তোলা এক নিত্যনৈমিত্তিক ব্যাপার। তবে সর্বশেষ যে গরিলাটি দুটির সঙ্গে সেলফি তোলা হয়েছে এসব গেরিলার ওজন ৪০০ পাউন্ড (সাড়ে চার মণ) পর্যন্ত হয়ে থাকে।

আলোচিত সেলফিতে দেখা যাচ্ছে, দুই গরিলাকে পেছনে রেখে সেলফি তুলছেন পশুশিকার ঠেকাতে গঠিত সৈন্যদলের (কঙ্গোর ভাষায় রেঞ্জারস) একজন সৈনিক। পেছনে একটি গরিলা সোজা হয়ে মাথাটা বামদিকে সামান্য হেলে দিয়ে পোজ দিচ্ছে। তার পেছনের গেরিলাটা মাথাটা সামান্য সামনের দিকে ঝুঁকে দিয়েছে, ঠিক যেটি মানুষে করে থাকে।

গত মঙ্গলবার গত মঙ্গলবার পার্কের ওই ছেলেটি তার ফেসবুকে ছবিটি শেয়ার করে এবং ক্যাপশনে লেখা ছিল আজ অফিসে অন্যরকম একটি দিন ।

পারনিলা উইন্টারস্কিওল্ড নামে একজন কমেন্টে লিখেছেন-‘ওয়াও, আপনি অফিসে যেটা করে দেখিয়েছেন তা সত্যিই অসাধারণ। তবে নিরাপদে থাকুন এবং সুন্দর ছবিটার জন্য ধন্যবাদ।

ছবিটি সম্পর্কে পার্কে ওয়েবসাইট থেকে বলা হয়েছে গত দুই দশক ধরে গত দুই বছর ধরে যুদ্ধ ও অন্যান্য সংগ্রামের কারণে পার্কের উপর অনেক প্রভাব পড়েছে । যার ফলে সাময়ীকভাবে পার্কের রেঞ্জার এর মধ্যে সাহস অনেক বেশি ।

পার্কের ওয়েবসাইটে আরো বলা হয়েছে সেবার কে দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে এখনো পর্যন্ত প্রায় ১৮০ জন সৈনিক পশুর আক্রমণ মৃত্যুবরণ করেছে ।

এরপর থেকে বিলুপ্তপ্রায় প্রাণী দের রক্ষণাবেক্ষণ করার জন্য সেখানকার কর্মীদের কঠোর পরিশ্রমের মাধ্যমে নিয়োগ দেওয়া হয় ।

স্থানীয় পুরুষ ও নারীদের বাছাই করে টানা ৬ মাস ব্যাপক প্রশিক্ষণের মধ্য দিয়ে এ পেশায় আসতে হয় তাদের। বর্তমানে পার্কটিতে এরকম ৬০০ সদস্য তাদের দায়িত্ব পালন করছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here